উ’ত্তেজনা উঠলে মেয়েরা কি করে

না’রীদের উ’ত্তেজনার বেশ কিছু লক্ষণ আছে। একজন নারী আগ্রহে উত্তেজিত হলে তাঁর নিচে পিচ্ছিল হয়ে উঠবে, এটা মোটামুটি সকলেই জানেন।কিন্তু এর বাইরেও কিছু বাহ্যিক লক্ষণ আছে, যেগুলো দেখে আপনি বুঝতে পারবেন যে আপনার স্ত্রী বা প্রেমিকা আগ্রহী।

যেমন- না’রীরা আগ্রহী হলে তাঁদের ঠোঁট র’ক্তাভ হয়ে ওঠে। স্বাভাবিকের চাইতে অনেক বেশি লাল হয়ে যায় ঠোঁট।না’রীদের গালেও লালিমা দেখা দেয় উ’ত্তেজনায়। অনেকে একটু একটু ঘামেন, নিঃশ্বাস ভারী হয়ে আসে।উ’ত্তেজিত হলে শ’রীর খুবই স্পর্শকাতর হয়ে ওঠে। আপনার সামান্য স্পর্শেই শি’হরিত হয়ে উঠবেন তিনি।

যতই লা’জুক স্বভাবের না’রী হোন না কেন, আগ্রহী হলে তিনি নিজেই আপনার কাছে আসবেন। হয়তো সরাসরি কিছু না বললেও আপনার কাছে এসে বসবেন, আলতো স্প’র্শ করবেন, চু’মু খাবেন, চো’খের ইশারায় কথা বলবেন।

আরো পড়ুন : মানবদে’হে অনেক রোগ আছে যেগুলোর চিকিৎসা নিলেও স্থায়ী কোন সমাধান পাওয়া যায়না। তবে দমিয়ে রাখা যায়। এই দমিয়ে রাখার বিষয়ে যথেষ্ট কার্যকরী ভুমিকা পালন করে রসুন।অনেকের কাছেই সকালে খালি পেটে কাঁচা রসুন খাওয়াটা ভীষণ অ’স্বাস্থ্যকর মনে হতে পারে। কিন্তু খালি পেটে রসুন খাওয়া দেহের জন্য ভীষণ স্বাস্থ্যকর একটি ব্যাপার।

আসুন তাহলে জেনে নিই সকালে খালি পেটে এক কোয়া রসুন খেলে সারবে যেসব রোগ : ১. অ্যান্টিঅক্সিডেন্টে সমৃদ্ধ রসুন র’ক্তকে পরিশুদ্ধ রাখে। র’ক্তে উপস্থিত শর্করার পরিমাণ নিয়ন্ত্রণেও করে রসুন এবং লোহার মত শক্ত করে আপনার গো’পনা…।

২. সকালে খালি পেটে রসুনের কোয়া খেলে সারা রাত ধরে চলা বিপাকক্রিয়ার কাজ উন্নত হয়। এ ছাড়া শ’রীরের দূষিত টক্সিনও মূত্রের মাধ্যমে বেরিয়ে যেতে পারে।৩. শীতে ঠাণ্ডা লাগলে খালি পেটে এক কোয়া রসুন খেলে উপকার পাওয়া যাবে। দুই সপ্তাহ সকালে রসুন খেলে ঠাণ্ডা লাগার প্রবণতা অনেকটা কমে।