যখন মেয়েরা মিলিত হওয়ার জন্য পা’গল হয়ে ওঠে

মেয়েরা তাদের জীবন সঙ্গীর সঙ্গে মিলন করতে চায়৷ কিন্তু বুক ফাটলেও মুখ ফুটে বলতে লজ্জা পায়। তাই জেনে নিন মেয়েরা কখন মিলনের জন্য পাগল হয়ে ওঠে৷

১. মেয়েদের চাহিদা ছেলেদের ৮ ভাগের এক ভাগ। কিশোরী এবং টিনএজার মেয়েদের যৌন ইচ্ছা সবচেয়ে বেশী। ১৮ বছরের পর থেকে মেয়েদের চাহিদা কমতে থাকে, ৩০ এর পরে ভালই কমে যায়।

২. ২৫ এর উর্দ্ধ মেয়েরা স্বামীর প্রয়োজনে কর্ম করে ঠিকই কিন্তু একজন মেয়ে মাসের পর মাস কর্ম না করে থাকতে পারে কোন সমস্যা ছাড়া।

৩. মেয়েরা রোমান্টিক কাজকর্ম কর্ম চেয়ে অনেক বেশী পছন্দ করে। বেশীর ভাগ মেয়ে গল্পগুজব হৈ হুল্লোর করে কর্মর চেয়ে বেশী মজা পায়।

৪. মেয়েরা অর্গ্যাজম করে ভগাংকুরের মাধ্যমে, মেয়েদের অর্গ্যাজমে কোন বীর্য বের হয় না। তবে পেটে প্রস্রাব থাকলে উত্তেজনায় বের হয়ে যেতে পারে মেয়েদের বীর্যপাত বলে কিছু নেই। কেউ যদি দাবী করে তাহলে সে মিথ্যা বলছে।

৫. ভগাংকুরের মাধ্যমে অর্গ্যাজমের জন্য মিলনের কোন দরকার নেই। ৬. লম্বা পুং অঙ্গ চেয়ে মোটা পুং অঙ্গ মজাবেশী। লম্বা পুং অঙ্গ বেশীরভাগ মেয়ে ব্যাথা পায়।৭. মেয়েদের যোনির সামান্য ভেতরেই খাজ কাটা গ্রুভ থাকে,

পেনিসের নাড়াচাড়ায় ঐসব খাজ থেকে মজা তৈরী হয়। এজন্য বড় পেনিসের দরকার হয় না।বাচ্চা ছেলের পেনিসও এই মজা দিতে পারে।অনেক ছেলে কিংবা মেয়েরা চায় বিপরীত লিংঙ্গের মানুষটি তার সঙ্গে মিলিত হোক।তথ্যসূত্র:allexamnotice.com